রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২
১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘বেশি সন্তান জন্ম’ দেয়ায় বাবার কবর ভাঙচুর!

অনলাইন ডেস্ক | আপডেট: রবিবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২২

‘বেশি সন্তান জন্ম’ দেয়ায় বাবার কবর ভাঙচুর!
সম্পত্তি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে বরগুনার তালতলী উপজেলায় বাবার কবর ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে আলম হাওলাদার নামে এক ব্যক্তি বিরুদ্ধে।

কবরের সীমানা প্রাচীর ভাঙার সময় অভিযুক্ত আলম হাওলাদার বলতে থাকেন, ‘কেন এতগুলো সন্তান জন্ম দিয়েছো। আমাকে একা কেন জন্ম দাওনি। এতগুলো সন্তান জন্ম দেয়ায় এখন যত ঝামেলা। আমি একা হলে এই ঝামেলা হতো না’।

শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তালতলীর মালিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, দীর্ঘ ৩০ বছর আগে মারা যান বরগুনার তালতলী উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামের নসু হাওলাদার। মৃত্যুর সময় উত্তরাধিকারী হিসেবে রেখে যান তিন ছেলে ও চার মেয়ে। এরপর এখন পর্যন্ত ছেলে-মেয়েদের মধ্যে হয়নি নসু হাওলাদারের জমি বন্টন। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ঝামেলা চলছে নসু হাওলাদারের বড় ছেলে আলম হাওলাদারের সঙ্গে তার অন্য ভাইবোনদের।

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে শুক্রবার সন্ধ্যায় আলম হাওলাদারের সঙ্গে ঝগড়া ও কথা কাটাকাটি হয় তার মেঝ বোন পারুল বেগমের। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে একাধিক ভাইবোন হওয়ায় ক্ষোভে বাবার বাঁধাই করা কবরের সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করেন বলে অভিযোগ ওঠে আলম হাওলাদারের বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে পারুল বেগম বলেন, জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আমাদের বড় ভাই আলম হাওলাদের সঙ্গে অন্য ভাইবোনদের বিরোধ চলে আসছে। বাবার মৃত্যুর ৩০ বছর পরও তার অধিকাংশ জমি এখনও নিজ দখলে রেখেছেন বড় ভাই আলম হাওলাদার। এ নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় আলম হাওলাদার সঙ্গে আমার কথা কাটাকাটি হয়।

0 Comments