রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২
১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘পাকিস্তানে ব্যাপক আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২২

‘পাকিস্তানে ব্যাপক আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন’
জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস পাকিস্তানের জন্য আরও বৈশ্বিক সহায়তার আবেদন করেছেন। শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তানের রাজধানীতে বিমান থেকে নামার পরই এ বৈশ্বিক সহায়তার কথা বললেন তিনি। এরই মধ্যে পাকিস্তানে স্মরণকালের বন্যায় প্রায় ১৪শ’ মানুষ মারা গেছে এবং ৩ কোটিরও বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খবর ডনের।

সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়, শুক্রবার সকালে ইসলামাবাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জাতিসংঘের মহাসচিবকে স্বাগত জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিনা রব্বানি খার। এর পরপরই প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বাসভবনে যান গুতেরেস। যেখানে প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি এবং অন্য নেতারা তাকে স্বাগত জানান।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস জানান, চলমান বন্যায় পাকিস্তানের ৩০ বিলিয়ন ডলার ক্ষতি হয়েছে। যদিও পাকিস্তান সরকারের সংশোধিত অনুমানে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ক্ষতির পরিমাণ ২০ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে হতে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে গুতেরেস বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এমন একটি দেশকে সহায়তা করতে হবে, যেটি জলবায়ু পরিবর্তনে সামান্য অবদান রাখে। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তনের ধাক্কা বহন করে।

জাতিসংঘের প্রধান এসময় বলেন, প্রায় ৩৩ মিলিয়ন মানুষ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মানুষ শুধু ঘরবাড়িই নয়, তাদের জীবিকা হারিয়েছে। তিনি বলেন, আমি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে কয়েকটি কথা বলতে চাই, এ সংকট মোকাবিলায় পাকিস্তানের ব্যাপক আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন।

গুতেরেস জোর দিয়ে বলেন, পাকিস্তানকে সমর্থন করা মানে কেবল সংহতি প্রকাশ নয় বরং জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলা করছে এমন একটি রাষ্ট্রের প্রতি ন্যায়বিচার করা। তিনি আরও বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে পাকিস্তানকে ব্যাপকভাবে সমর্থন করা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দায় রয়েছে।

জাতিসংঘের মহাসচিব পাকিস্তানে তার ২ দিনের সফরে দেশটির বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করবেন বলেও জানা গেছে।
0 Comments