রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২
১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিক্ষকের ভূমিকায় ইউএনও

অনলাইন ডেস্ক | আপডেট: বুধবার, অক্টোবর ১২, ২০২২

শিক্ষকের ভূমিকায় ইউএনও
সম্প্রতি করোনার ধকল কাটিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। করোনার কারণে স্থবির হয়ে পড়েছিল জীবনযাপন। এর প্রভাব পড়ে শিক্ষা ক্ষেত্রেও। শিক্ষা ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। শিক্ষাজীবন শুরুতে বড় ধাক্কা পেতে হয়েছে।

বর্তমানে সবকিছু স্বাভাবিক হতে শুরু করলেও শিক্ষাব্যবস্থা কিছুটা পিছিয়ে গেছে। তাই শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন শিক্ষক অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্ট সকলেই। এরই লক্ষে শিক্ষাব্যবস্থা ত্বরান্বিত করতে এবং কোমলমতি ক্ষুদ্র শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিতে নিরলস কাজ যাচ্ছেন নওগাঁর সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্যাহ আল মামুন।

জানা যায়, সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় জেলা পর্যায়ে ‘প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০২২’ পেয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্যাহ আল মামুন। সরকারি অর্পিত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সময় পেলেই ছুটে যান উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া এগিয়ে নিতে নিজেই ক্লাস নেওয়া শুরু করেন।


বুধবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে এরই ধারাবাহিতায় উপজেলার জয়পুর রাজ্যধর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় যান ইউএনও আব্দুল্যাহ আল মামুন। ওই স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ধর্ম শিক্ষা ও পঞ্চম শ্রেণির গণিত ক্লাস নেন তিনি।

এ সময় উপজেলা শিক্ষা অফিসার তৃষিত কুমার চৌধুরী, উপজেলা জনস্বাস্থ্য উপসহকারী প্রকৌশলী সন্তোষ কুমার, জয়পুর রাজ্যধর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলামসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাফি ও ফাহমিদা বলেন, ইউএনও আমাদের গণিত ক্লাস নিয়েছেন। গণিত বই হতে আমাদের বিভিন্ন প্রশ্ন করেন তিনি। আমরা তার প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে পেয়ে খুবই খুশি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম বলেন, সময় পেলেই মাঝে মধ্যে হঠাৎ করে স্কুলে ছুটে আসেন তিনি। বিভিন্ন ক্লাসে গিয়ে ক্লাস নেন। শিক্ষাব্যবস্থা বিষয়ক বিভিন্ন পরামর্শ দেন। যা আমাদের জন্য অবশ্যই অনেক ভালো লাগার বিষয়।

সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্যাহ আল মামুন বলেন, উন্নত ও সমৃদ্ধ জাতি গঠনে শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী এবং দেশের একজন নাগরিক হিসেবে শিক্ষা খাতের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারা আমার জন্য অত্যন্ত গর্বের। প্রাথমিকের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশেষ যত্নবান হওয়া প্রয়োজন। প্রাথমিক পর্যায়েই শিশুদের শিক্ষার প্রতি মনযোগী করে তুলতে হবে
0 Comments