শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহে আ.লীগের সম্মেলন : নগরে উৎসবের আমেজ

অনলাইন ডেস্ক | আপডেট: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২

ময়মনসিংহে আ.লীগের সম্মেলন : নগরে উৎসবের আমেজ
ছয় বছর পর আগামী শনিবার (৩ ডিসেম্বর) হতে যাচ্ছে ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে গোটা জেলায় বইছে সাজ সাজ রব আর নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। নগর ছেয়ে গেছে তোরণ, ব্যানার আর ফেস্টুনে। সম্মেলনের মাধ্যমে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে কারা আসছেন, এ নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। 

জানা গেছে, সবশেষ ২০১৬ সালের ৩০ এপ্রিল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়। পরে একই বছরের ১০ অক্টোবর অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকাকে সভাপতি এবং অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক করা হয়। অপরদিকে মহানগর কমিটিতে এহতেশামুল আলম সভাপতি এবং মোহিত উর রহমান শান্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়।

দলীয় সূত্র জানায়, এবারের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দুইটি ইউনিট থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে কমপক্ষে পাঁচজন করে প্রার্থী হয়েছেন। এরমধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, বর্তমান সহসভাপতি নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি ও ফারুক আহমেদ খান আলোচনায় রয়েছে। 

আর সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশীরা হলেন- মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত, বর্তমান জেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমএ কুদ্দুস, শওকত জাহান মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ আলী আকন্দ প্রমুখ।

অপরদিকে, মহানগরের সভাপতি পদে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছেন নেতাকর্মীদের ‘প্রিয়মুখ’ ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগরের সহসভাপতি ইকরামুল হক টিটু। এছাড়াও বর্তমান সভাপতি এহতেশামুল আলম ও সাদেক খান মিল্কী টজু সভাপতি পদপ্রত্যাশী। 

আর সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান কমিটির সহসভাপতি অধ্যাপক গোলাম ফেরদৌস জিল্লু, যুগ্ম সম্পাদক হোসাইন জাহাঙ্গীর বাবু ও সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল হক প্রমুখ প্রার্থী হয়েছেন।

ময়মনসিংহ নগরের ঐতিহাসিক সার্কিট হাউজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে এই সম্মেলন। ইতোমধ্যে সম্মেলনকে ঘিরে প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে বলে জানিয়েছেন আয়োজক কমিটি। জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবু সাঈদ দীন ইসলাম ফখরুল জানান, ‘সার্কিট হাউজ মাঠের উত্তর পাশে নৌকার আদলে মঞ্চ নির্মাণ হচ্ছে। শুক্রবার মঞ্চ নির্মাণের কাজ শেষ হবে। মঞ্চে ২০০ জনের বসার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সমাবেশে কয়েক লাখ লোকের সমাগম ঘটবে বলে আশা করছি।’ 

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা বলেন, ‘সম্মেলন সফল করতে আমাদের ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে বইছে উৎসবের আমেজ। আশা করছি, সম্মেলনের মাধ্যমে দুটি ইউনিটেই ত্যাগীদের মূল্যায়ন করে কমিটি দিবে হাইকমান্ড।’

মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, ‘সম্মেলন সফল করতে আমরা দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। নতুন কমিটি কী প্রক্রিয়ায় হবে সেটি নির্ধারণ করবে কেন্দ্রীয় কমিটি। যোগ্যরাই নেতৃত্বস্থানে থাকবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

শনিবারের এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী। এছাড়াও সম্মানিত অতিথি হিসেবে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক ও প্রধান বক্তা হিসেবে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।
0 Comments