মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪
৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনায় ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক | আপডেট: রবিবার, জুলাই ৭, ২০২৪

খুলনায় ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

স্বপ্নীল হকঃ

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার সরাপপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম (৪২) দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার (০৬ জুলাই) রাত ১০টার দিকে ডুমুরিয়ার গুটুদিয়া ওয়াপদার মোড় নামক স্থানে তাকে গুলি করা হয়।

জানা গেছে, শনিবার বিকালে ডুমুরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় অংশগ্রহণ করেন তিনি। রাত ১০টার দিকে ডুমুরিয়া উপজেলা সদর থেকে একা মোটরসাইকেলযোগে খুলনার বাসায় ফিরছিলেন। পথে গুটুদিয়া ওয়াপদার ব্রিজের পূর্বপাশে পৌঁছালে কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। তিনটি গুলি তার পিঠে লাগে এবং তিনি ঘটনাস্থলেই পড়ে যান।

গুলির শব্দ শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলে দ্রুত পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। প্রচুর রক্তক্ষরণের কারণে গুলিবিদ্ধ রবিউল ইসলামকে দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের শ্যালক মনির হোসেন জানান, তার দুলাভাই ডুমুরিয়া থেকে খুলনায় ফিরছিলো। পথে গুটুদিয়ায় পৌছালে তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে সন্ত্রাসীরা। পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তিনি এলাকায় খুবই জনপ্রিয় ছিলেন, যা তার মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা এর বিচার চাই।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল জানান, জনপ্রিয় চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবিকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করেছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার দেহের বিভিন্ন স্থানে সাতটি গুলি লেগেছে।

ডুমুরিয়া থানার ওসি সুকান্ত সাহা বলেন, খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই এবং সেখান থেকে আলামত সংগ্রহের চেষ্টা করি। এ ঘটনায় কারা জড়িত থাকতে পারে সে বিষয়ে পুলিশের একটি টিম কাজ শুরু করছে।

জানা গেছে, শরাফপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রবিউল ইসলাম রবি উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। এছাড়া খুলনা জেলা ছাত্রলীগের উপ-পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন তিনি। ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেন। ২০১৫ সালে একবার তিনি সন্ত্রাসীদের আক্রমণের শিকার হয়েছিলেন।

0 Comments